শুধুমাত্র - সৃজিত মুখোপাধ্যায়

  • সৃজিত মুখোপাধ্যায়

    সৃজিত মুখোপাধ্যায়
    চলচ্চিত্র পরিচালক, অভিনেতা ও চিত্রনাট্যকার

    সৃজিত মুখোপাধ্যায় একজন ভারতীয় বাঙালি চলচ্চিত্র পরিচালক, অভিনেতা, চিত্রনাট্যকার, অর্থনীতিবিদ। ১৯৭৭ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর জন্মগ্রহণ করেন তিনি। তার বাবা সমরেশ মুখোপাধ্যায় একজন স্থাপত্যবিদ্যার অবসর প্রাপ্ত শিক্ষক। তিনি ছিলেন একাধারে কবি, শিক্ষক, চিত্রশিল্পী। তার মা এনটমি বিভাগের একজন শিক্ষক। সৃজিত মুখোপাধ্যায় তার শৈশব জীবন শেষ করেন দোলনা ডে হাই স্কুল এবং সাউথ পয়েন্ট স্কুল থেকে। তারপরে তিনি প্রেসিডেন্সী কলেজ থেকে অর্থনীতিতে স্নাতক পাশ করেন। পরবর্তীতে তিনি জহরলাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অর্থনীতিতে এম.ফিল এবং পিএইচডি শেষ করেন। সৃজিত মুখোপাধ্যায় অর্থনীতিবিদ ও পরিসংখ্যানবিদ হিসেবে কাজ করার সময় দিল্লীতে ইংরেজী সার্কিট থিয়েটারের সাথে বেশ ভালোভাবে যুক্ত হন। ২০১০ সালে ‘অটোগ্রাফ’ ছবিটি পরিচালনার মাধ্যমে আলোচনায় আসেন সৃজিত মুখোপাধ্যায়। চলচ্চিত্রটি ব্যাপক জনপ্রিয়তা লাভ করে। এর ধারাবাহিকতায় তিনি ২০১১ সালে বাইশে শ্রাবণ, ২০১২ সালে হেমলক সোসাইটি, ২০১৩ সালে মিশর রহস্য, ২০১৪ সালে জাতিস্মর ও চতুষ্কোণ ২০১৫ সালে নির্বাক এবং রাজকাহিনী চলচ্চিত্র পরিচালনা করেন। ডিসেম্বর ২০১৭ পর্যন্ত সৃজিত মুখোপাধ্যায় মোট ১১টি চলচিত্র পরিচালনা করেছেন। এর মধ্যে রয়েছে- বাইশে শ্রাবন, হেমলক সোসাইটি , মিশর রহস্য, জাতিস্মর, চতুষ্কোণ, নির্বাক, রাজকাহিনী, জুলফিকার, বেগমজান এবং ইয়েতি অভিযান। তার সবগুলো ছবিই সমালোচকদের কাছে প্রশংসিত হয় এবং ব্যাপক সাড়া ফেলে। ৬১ তম জাতীয় চলচিত্র পুরষ্কারে সৃজিত মুখোপাধ্যায়ের পরিচালিত ‘জাতিস্মর’ ছবিটি চারটি পুরষ্কার জিতে নেয়। ৬২ তম জাতীয় চলচিত্র পুরষ্কার অনুষ্ঠানে তার পরিচালিত ‘চতুষ্কোণ’ সিনেমাটির জন্য তিনি সেরা পরিচালক এবং সেরা চিত্রনাট্য বিভাগে পুরষ্কার জিতে নেন। সৃজিত মুখোপাধ্যায়ের পরিচালিত রাজকাহিনী সিনেমাটি হিন্দিতে ‘বেগম জান’ শিরোনামে পুনঃনির্মিত হয়েছে যার নাম ভূমিকায় অভিনয় করেছেন বিদ্যা বালান। তার নির্মানাধীন চলচ্চিত্র উমা, এক যে ছিলো রাজা, পিউ ন।